আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আবারো সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ দেয়া হয়েছে আলোচিত ইসলামি বক্তা জাকির নায়েকের। ভারতের আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) অর্থ পাচার মামলায় কয়েক কোটি রুপির সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ দিয়েছে।

শনিবার এক বিবৃতিতে ইডি জানিয়েছে, মানি লন্ডারিং অ্যাক্টের অধীনে জাকির নায়েকের মুম্বাই ও পুনের সম্পত্তি ক্রোক করার প্রাদেশিক আদেশ জারি করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা জানায়, ওই স্থাবর সম্পত্তির আনুমানিক মূল্য ১৬ কোটি ৪০ লাখ রুপি হবে।

অর্থ পাচার মামলায় এ নিয়ে তৃতীয় দফায় জাকির নায়েকের সম্পত্তি ক্রোক করার নির্দেশ এল। এ নিয়ে জাকির নায়েকের মোট ৫০ কোটি ৪৯ লাখ রুপির সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ এল।

নিজের বক্তৃতা নিয়ে ২০১৬ সালে তীব্র আলোচনা-সমালোচনার মুখে পড়েন জাকির নায়েক। সে সময় তাঁর বিরুদ্ধে অর্থ পাচার ও উগ্রপন্থাকে উসকে দেওয়ার অভিযোগ তুলেছিল ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। একই অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে মামলাও হয়। বন্ধ করে দেওয়া হয় তাঁর প্রতিষ্ঠিত ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন (আইআরএফ) ও পিস টিভি।

অভিযোগ ওঠার পর ২০১৬ সালের ১ জুলাই ভারত ছেড়ে যেতে বাধ্য হন জাকির নায়েক। ভারতে মামলা হওয়ার পর জাকির নায়েক মালয়েশিয়ায় আশ্রয় চাইলে তাঁকে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দেয় তৎকালীন নাজিব রাজাক সরকার। এরপর থেকে তিনি মালয়েশিয়ার পুত্রজায়া শহরে বসবাস করে আসছেন।

জাকির নায়েক ২০০৬ সালে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন পিস টিভি। চ্যানেলটির দাবি, বিশ্বজুড়ে তাদের দর্শকসংখ্যা ২০ কোটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.