বিনোদন ডেস্ক : মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া বাংলাদেশের মেয়ে ঐশীকে নিয়ে বিশ্বসেরা সুন্দরী ভ্যানেসা পন্সে দে লিওন বলেছেন, আপনারা ঐশীকে নিয়ে গর্ব করতে পারেন। সে খুবই চমৎকার মেয়ে। সোমবার বিকেলে ফেসবুকে পোস্ট করা এক ভিডিওবার্তায় এমনটাই জানা গেছে।

মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালে শেষে আয়োজক কর্তৃপক্ষ নৈশভোজ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সে অনুষ্ঠানের এক ফাঁকে ঐশীর ধারণ করা একটি ভিডিওতে কথা বলেন ভ্যানেসা পন্সে দে লিওন। কথা প্রসঙ্গে মেক্সিকোর এই মডেল বাংলাদেশে আসার ইচ্ছেও পোষণ করেন। তিনি বলেন, আশা করছি, আমি বাংলাদেশে যাব।

বিশ্বের বিভিন্ন ১১৮ জন প্রতিযোগীকে টপকে এবারের মিস ওয়ার্ল্ড খেতাব অর্জন করেন মেক্সিকোর ভ্যানেসা পন্সে দে লিওন। সেরা সুন্দরী নির্বাচনে বিশ্ব সুন্দরী কর্তৃপক্ষ মোটেও ভুল করেনি বলে মনে করছেন বাংলাদেশের মেয়ে ঐশী। তিনি বলেন, আমি একটা বিষয় বুঝে গেছি, বিশ্ব সুন্দরী কর্তৃপক্ষ কখনোই বিশ্ব সুন্দরী নির্বাচনে ভুল করে না। ভ্যানেসাও এমন একজন মেয়ে যে বিশ্ব সুন্দরী হওয়ার দাবিদার। সে খুব চমৎকার মনের অধিকারিও।

২৫ বছর বয়সী ভানেসা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিষয়ে ডিগ্রি অর্জন করেন মেক্সিকোর গুয়ানাজুয়াতো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। একই সঙ্গে মানবাধিকার বিষয়ে ডিপ্লোমা করেছেন। করেন শিক্ষকতাও। পাশাপাশি তিনি মেক্সিকোর পেশাদার মডেল।

মিস ওয়ার্ল্ডের ৬৮তম আসরের চূড়ান্ত আসর বসে চীনের হাইনান প্রদেশের সানাইয়া সিটি এরেনায়। অনুষ্ঠানের শুরুতে ১১৮জন প্রতিযোগী মঞ্চে আসেন। সেখানে বড় পর্দায় প্রতিটি দেশের পতাকা ও প্রতিযোগীদের ভিডিও দেখানো হয়। ‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জ’ বিভাগের বিজয়ী মঞ্চে উঠেছিলেন বাংলাদেশের প্রতিযোগী জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। ঐশী বাংলাদেশের প্রথম প্রতিযোগী, যিনি সেরা ৩০-এ জায়গা করে নিয়েছেন। প্রতিযোগিতার নানা ধাপ পেরিয়ে বিশ্বের সেরা ৩০ সুন্দরী লড়েছেন গ্র্যান্ড ফিনালেতে। এর আগে মিস ওয়ার্ল্ডে বাংলাদেশ অংশগ্রহণ করলেও এবারই প্রথম বাংলাদেশের কোনো প্রতিযোগী গ্র্যান্ড ফিনালেতে লড়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.