আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন সুন্দর ছোট্ট শহর গ্র্যানবি। কিন্তু ম্যাসাচুসেটসের সেই গ্র্যানবি শহরেই রয়েছে রহস্য। রাস্তার মাঝখানেই রয়েছে জুতো! কিন্তু জুতোর মালিক কে বা কারা কেউ এই রহস্যের উন্মোচন করতে পারছেন না।

গ্র্যানবির আমহার্স্ট রোড ও আমহার্স্ট স্ট্রিটের মাঝে সুন্দর বেশ কয়েকটি বাড়ি। তার সামনের রাস্তায় মূলত এই ঘটনাগুলি হচ্ছে।

রাস্তার মাঝখানে মাঝে মাঝেই দেখা যাচ্ছে কয়েক জোড়া জুতো। মানুষ তো এই জায়গাটিকে শু-আইল্যান্ড নামই দিয়ে দিয়েছেন। কখনও পাঁচ-ছয়টা, আবার কখনও ১০ থেকে ১২টা জুতো। কিন্তু এরকম করার মানে কেউ বুঝে উঠতে পারছেন না।

কাজের লোক ডেকে এনে পরিস্কার করানো হয়েছিল রাস্তাটিকে। এমনটাই জানালেন, অ্যারন ব্যাসেল নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি। কিন্তু কিছুদিন পর আবার দেখলেন একই জায়গায় জুতো রাখা রয়েছে। রীতিমতো ভয় পেয়ে যান তিনি।

পুলিশও এই ঘটনায় নাজেহাল। ম্যাসাচুসেটসের এই শহরে ঘটনার কারণ কেউ ধরতেই পারছেন না।

রাস্তার মাঝখানে হঠাৎকরেই জুতো দেখে নানা ভৌতিক ঘটনার কথাও বলেছেন কেউ কেউ। কেউ আবার বলছেন, নিছকই মজা করা হচ্ছে।

কয়েক মাস ধরে ঘটনাটা হচ্ছে, আবার দেশটির বিভিন্ন সংবাদ সংস্থার দাবি, গত তিন থেকে চার বছর ধরেই এমন হচ্ছে।

পুরনো জুতো হলেও জুতোগুলি যে ছেঁড়া তা কিন্তু নয়। বাচ্চাদের জুতোও রয়েছে এর মধ্যে।

‘‘এটা যে খুব অসুবিধাজনক তা কিন্তু নয়, আসলে ব্যাপারটা খুব আজব, আমি জানতে চাই কেন এরকম করছেন কেউ,’’ এমনটাই বলেছেন গ্র্যানবি পুলিশের প্রধান অ্যালান উইশার্ট।

রহস্যটা রয়েই গিয়েছে। কেন বা কী কারণে এভাবে প্রায়ই একই রাস্তার একই জায়গায় জুতো পড়ে রয়েছে, কেউ জানে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.