বিনোদন ডেস্ক : আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফেনী-৩ আসন থেকে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র কিনেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী শমী কায়সার। গতকাল রোববার মনোনয়নপত্র কিনে তা জমাও দেন এই অভিনেত্রী।

এ বিষয়ে কথা বলতে সোমবার সকালে শমী কায়সারের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে গতকাল মনোনয়নপত্র সংগ্রহের জন্য শমী কায়সারের সঙ্গে গিয়েছিলেন তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু নাট্য পরিচালক চয়নিকা চৌধুরী।

এ প্রসঙ্গে চয়নিকা চৌধুরী বলেন ‘ফেনী-৩ আসনের জন্য নমিনেশন পেপার কিনে জমা দিয়েছে শমী কায়সার। গতকাল কিনে গতকালই জমা দিয়েছে। শমী আমার কাছের বন্ধু। তাই স্বাভাবিকভাবেই শমী আমাকে বলল, ‘আমি নমিনেশন পেপার জমা দিতে যাব, ওখানে অনেক লোকের ভিড়, তুই কি আমার সঙ্গে যাবি?’ আমি বললাম, ‘যাব না কেন?’ নাটকের শুটিংয়ের সময় ওকে ডাকতে পারি আর ওর একটা কাজ পড়েছে সেখানে যাব না এটা তো হয় না।’

তিনি আরো বলেন, ‘শমী অনেক মেধাবী আর বুদ্ধিমতী একটি মেয়ে। ও কখনো নিজের স্বার্থ দেখেনি। ৭১-এর প্রজন্মতে ওকে রাস্তায় নামতে দেখেছি। কিন্তু নিজের সুবিধার জন্য দল বদল করতে দেখিনি। এই এক বছরে কত কী দেখলাম! আজ এই দল, কাল আরেক দল। এসব দেখে মনে মনে হাসি, অবাক হই। তবে শমীর মতো স্বার্থহীন মানুষ, দেশপ্রেম যার রক্তে, তাকে আমাদের দেশের কাজে প্রয়োজন। শমীর জন্য শুভ কামনা থাকল।’

গত ৮ নভেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। তফসিল অনুযায়ী, নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৩ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ১৯ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিন ২২ নভেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৯ নভেম্বর।

অভিনয় থেকে অনেকটা দূরেই রয়েছেন শমী কায়সার। তবে কিছু সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন তিনি। ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) ২০১৭-১৯ মেয়াদের নির্বাচনে অংশ নিয়েও বিজয়ী হন শমী কায়সার।

১৯৮৯ সালে পরিচালক আতিকুল হক চৌধুরীর একটি নাটকের মাধ্যমে মিডিয়াতে পা রাখেন শমী কায়সার। এরপর ইমদাদুল হক মিলনের উপন্যাস অবলম্বনে এবং আব্দুল্লাহ আল মামুনের পরিচালনায় ‘যত দূরে যাই’ শিরোনামের তিন পর্বের ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করে পরিচিতি লাভ করেন তিনি। তারপর ‘নক্ষত্রের রাত’, ‘ছোট ছোট ঢেউ’, ‘স্পর্শ’, ‘একজন’, ‘অরণ্য’, ‘আকাশে অনেক রাত’, ‘মুক্তি’, ‘অন্তরে নিরন্তরে’, ‘স্বপ্ন, ঠিকানা’ সহ বিভিন্ন নাটকে অভিনয় করেন তিনি।

এ ছাড়া ঢাকা থিয়েটারে ১২ বছর কাজ করেছেন শমী। তিনি শহীদুজ্জামান সেলিমের সঙ্গে ‘হাত হোদাই’ নাটকে অভিনয় করেন। ২০০৪ সালে ‘লালন’, ‘হাছন রাজা’ সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি। চলচ্চিত্র নির্মাতা ঋত্বিক ঘটকের জীবনী নিয়ে নির্মিত ‘দ্য নেম অব এ রিভার’ সিনেমায় অভিনয় করেন শমী। ১৯৯৭ সালে শমী কায়সার প্রতিষ্ঠা করেন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ধানসিঁড়ি। এ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে বেশ কিছু নাটক প্রযোজনা করেন এই অভিনেত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.