আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সত্য সংবাদের নিশ্চয়তার জন্য  চীনে বিবিসি ওয়েবসাইটের সাজ-সজ্জায় পরিবর্তন আনছে বিবিসি। এই পরিবর্তনের জন্য চীনে বিবিসির ওয়েবসইটটি  বন্ধ করে দিয়েছে বিবিসি কর্তৃপক্ষ। এদিকে ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক (ভিপিএন) অথবা পিসাইপন অ্যাপস দ্বারা সাইটটি ব্যবহারের জন্য এক বিবৃতিতে অনুরোধ করেছে বিবিসি।

এর আগে সাইটে নিরাপদে সংযোগ পাওয়ার জন্য সাইটের ঠিকানা এইচটিটিপি থেকে এইচটিটিটিএস পরিবর্তন করে বিবিসি কর্তৃপক্ষ। এই পরিবর্তনের পরও সাইটটি বন্ধ রয়েছে চীনে। খবর: বিবিসির।

কেন চীনে বিবিসির ওয়েবসাইটের পরিবর্তন করা হচ্ছে, এমন প্রশ্নে বিবিসি নিউজের প্রধান সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার জেমস ডোনাহু জানান, চারদিকের ভুয়া সংবাদের ছড়াছড়ির মধ্যে যাতে ব্যবহারকারীরা সত্য সংবাদ বুঝতে পারে এবং তাদের ব্রাউজিং বিবরণের গোপনীয়তা নিশ্চিত করার জন্য এই কার্যক্রম।

এইচটিটিপিএসের মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের উভয় বিষয়টি নিশ্চিত করা যায় বলে তিনি সাম্প্রতিক এক ব্লগ পোস্টে জানান। এই প্রযুক্তির ফলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী কোন তথ্য বা ভিডিও ট্র্যাক করতে পারবেন না। যা বর্তমানে যুক্তরাজ্য ছাড়া বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রনালয় চেষ্টা করছে বলে তিনি জানান।

এদিকে চীনা সরকারের কঠোর অভিযানের মধ্যেও ব্যবহারকারীরা ভিপিএনের মাধ্যমে সাইটটি ব্যবহার করছেন। তবে বিবিসি বলছে, গত এক সপ্তাহ থেকে  চীনে কেউ তাদের সাইটে ঢুকতে পারছে না।

এর আগে চীনে ২০১৪ সালে বিবিসির ওয়েবসাইট বন্ধ করা হয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.