নিজস্ব প্রতিবেদক : মেয়র প্রার্থীদের ভোট বর্জনের ঘোষণা, পাল্টা-পাল্টি অনিয়মের অভিযোগ ও নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু থাকার দাবির মধ্য দিয়েই চলছে তিন সিটি করপোরেশনের ভোটগ্রহণ।

সোমবার (৩০ জুলাই) সকালে ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার একঘন্টা পর থেকে ভোটে জালিয়াতির অভিযোগ উঠে। ইতোমধ্যে বরিশালে বিএনপি, বাসদ ও ইসলামি আন্দোলনের প্রার্থী ভোট বর্জন করেছেন। তবে নির্বাচন কমিশন বলছে ভোটে সাময়িক বিশৃঙ্খলা দেখা দিলেও পরবর্তীতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তা নিয়ন্ত্রণে এনেছে।

ভোটের সার্বিক পরিস্থিতি বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার শাহাদাত হোসেন চৌধুরী বার্তা২৪.কমকে বলেন, নির্বাচন শুরুর পর কিছু জায়গায় বিশৃঙ্খলার ঘটনা ঘটেছে। আমরা সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে র্যাব-পুলিশকে নির্দেশনা দিয়েছি। কিছুক্ষণের মধ্যেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে আইশৃঙ্খলা বাহিনী। ভোট কেন্দ্রগুলোর সামনে দীর্ঘ লাইনে দাড়িয়ে আছে ভোটাররা, তারা সবাই ভোট দেয়া জন্য অপেক্ষা করছে। ভোটের পরিস্থিতি এখন ভালো।

বরিশালে প্রার্থীদের ভোট বর্জন বিষয়ে তিনি বলেন, ভোট বর্জন কোন সমাধান নয়। তাদের কোন অভিযোগ থাকলে তারা অাদালতে যেতে পারে। কিন্তু ভোট বর্জন করার কোন যৌক্তিকতা নেই।

বরিশালের প্রার্থীদের ভোট বর্জনের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বার্তা২৪.কমকে বলেন, বরিশালের অভিযোগগুলো তদন্ত করে দেখছি। কমিশন সভায় যে সিদ্ধান্ত হয়, তা-ই জানানো হবে।

নির্বাচন কমিশনের যুগ্ন সচিব ফরহাদ আহমেদ খান বার্তা২৪.কমকে বলেন, তিন সিটি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। বরিশালের একটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। এছাড়া কোন কেন্দ্রে ভোট স্থগিতের খবর পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.