বিশেষ প্রতিনিধি : সারাদেশে ঈদুল আযহায় কুরবানিযোগ্য গবাদিপশুর সংখ্যা এবার প্রায় এককোটি ১৬ লাখ। তার মধ্যে গরু-মহিষ ৪৪ লাখ ৫৭ হাজার এবং ছাগল-ভেড়ার সংখ্যা ৭১ লাখ। গতবছর এ সংখ্যা ছিল এককোটি চারলাখ ২২হাজার।

‘ঈদুল আযহা উপলক্ষে কুরবানির হাটে ভেটেরিনারি-সেবাসংক্রান্ত’ এক আন্তঃমন্ত্রণালয়সভায় এসব তথ্য দেয়া হয়। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিবের সভাপতিত্বে সম্প্র‌তি সভা‌টি হয়।

‌রোববার দুপু‌রে প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণাল‌য়ের এক সংবাদ বিজ্ঞ‌প্তি‌তে এ তথ্য প্রকাশ করে।

তবে এ বছর কুরবানিযোগ্য হৃষ্টপুষ্ট গরু-মহিষের সংখ্যা প্রায় ২৯ লাখ ২০ হাজার এবং ভেড়া-ছাগল ১৮ লাখ ২৬ হাজার। বাকিগুলো অনুৎপাদনশীল গরু-মহিষ ও ছাগল-ভেড়া।

সভায় জানা‌নো হয়, এ বছর কুরবানির হাটে পশুর প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য প্রতিটি ছোট হাটে অন্তত ১টি, বড় হাটে ২টি করে এবং ঢাকার গাবতলীর হাটে ৪টি মেডিক্যাল টিম থাকবে।

রাজধানীর প্রতিটি টিমে ১জন ভেটেরিনারি সার্জন, ১জন টেকনিক্যাল কর্মী (ভিএফএ/ইউএলএ) এবং ১জন করে শেরে-বাংলানগর কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টার্র্নি ভেটেরিনারি সার্জন থাকবেন। গতবছর সারাদেশের ২ হাজার ৩৬২টি পশুর হাটে মোট ১ হাজার ১৯৩টি মেডিক্যাল টিম দায়িত্ব পালন করে।

গত বছরের ন্যায় এবছরও প্রাণিসম্পদ অধিদফতর গবাদিপশুর খামারগুলোতে স্বাস্থ্যহানিকর রাসায়নিক দ্রব্যের ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে ল্যাবরেটরি-পরীক্ষার ব্যবস্থা ছাড়াও স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগ প্রাণি স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর স্টেরয়েড ও হরমোন জাতীয় ওষুধের বিক্রয় ও সরবরাহ নিয়ন্ত্রণ, সীমান্তবর্তী এলাকায় এসব দ্রব্যের চোরাই পথে আসা বন্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর ভাবে মনিটরিং এবং জেলা-উপজেলা প্রশাসনসহ পুলিশ প্রশাসন পল্লী চিকিৎসকদের এসবের ব্যবহার রোধে পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

এছাড়াও নির্দিষ্ট স্থানে কুরবানিকরণসহ ময়লা বর্জ্য যত্রতত্র না ফেলা এবং কুরবানির আগে-পরে ঢাকা সিটির পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে ঢাকা সিটি কর্পোরেশনদ্বয়ের সহযোগিতায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় সর্বাত্মক ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.