ক্রীড়া প্রতিবেদক: আইসিসি টেস্ট অলরাউন্ডার র‌্যাঙ্কিংয়ে সবার ওপরে সাকিব আল হাসানের নাম। মাত্র সাত মাস আগে সাকিবকে টেস্টের নেতৃত্বে ফিরিয়েছিল বিসিবি।

কিন্তু বাঁহাতি এ অলরাউন্ডার টেস্ট খেলতে চান না! এমনটাই দাবি করলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। বোর্ড সভাপতির অভিযোগ, সাকিবের মতো আরো অনেকে টেস্ট খেলতে চান না। সেই তালিকায় সবথেকে বড় নাম মুস্তাফিজুর রহমান। বলার অপেক্ষা রাখে না দেশের বাইরে ফ্রাঞ্চাইজি লিগে বাড়তি আকর্ষণ এবং বিশাল পারিশ্রমিকের কারণেই দুজনের এমন চিন্তা!

শুক্রবার বোর্ড সভাপতি বলেছেন, ‘টেস্টের প্রতি আইসিসিরই আগ্রহ নেই…ইংল্যান্ড আর অস্ট্রেলিয়া ছাড়া কেউ আগ্রহ দেখায় না। কিন্তু আমাদের দেশে এখন দেখছি, বেশ কিছু সিনিয়র ক্রিকেটার আছে যারা টেস্ট খেলতে চায় না। যেমন, সাকিব টেস্ট খেলতে চায় না। মুস্তাফিজও টেস্ট খেলতে চায় না। তবে বলে না যে খেলব না, কিন্তু এড়িয়ে যেতে চায়। হয়তো ইনজুরিপ্রবণ বলেই চায় না। অনেকেই টেস্ট খেলতে চায় না। কারণ টেস্টটা তো অনেক কঠিন।’

সাকিব টেস্ট খেলতে চান না অথচ তিনি দলের অধিনায়ক। মুস্তাফিজ মাত্রই ক্যারিয়ার শুরু করলেন অথচ সাদা পোশাকে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করার ইচ্ছা নেই। যেখানে টেস্টে এখনও সাদামাটা, নড়বড়ে বাংলাদেশ দল সেখানে দুই ক্রিকেটারের টেস্ট খেলার ইচ্ছা না থাকা সত্যিই হতাশার।

বিসিবি সভাপতি তাই ভিন্ন চিন্তা করছেন। তার ইচ্ছে তিন সংস্করণে বাংলাদেশের পৃথক পৃথক দল গড়া ও তরুণ প্রজন্মকে টেস্ট ক্রিকেটে নিয়ে আসা। নাজমুল হাসানের মতে,‘এখন অনেকেই টেস্ট খেলতে চায় না। টেস্ট তো একটু কঠিন। রুবেল অনেক অভিজ্ঞ। অনেক দিন ধরে আমাদের সার্ভিস দিয়ে যাচ্ছে। ওর জন্যও টেস্ট একটু কঠিন হয়ে যাচ্ছে। তরুণ প্রজন্ম থেকে ক্রিকেটার নিয়ে আসতে হবে। এজন্য টেস্টের জন্য আমাদের নতুন দল গড়তে হবে। পারলে টি-টোয়েন্টিতেও। হয়ত তিন-চারজন কমন থাকবে। সব দেশ এখন তাই করে। সবারই স্পেশালিস্ট টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট ক্রিকেটার আছে।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজে টেস্ট সিরিজে ব্যর্থতায় হতাশ নাজমুল হাসান। বাজে পারফরম্যান্সের পেছনে দুরূহ উইকেট প্রতিকূল কন্ডিশনকে বড় বাঁধা মনে করছেন বোর্ড সভাপতি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.