ডেস্ক : বিভিন্ন জেলার ৪৩ জন শিক্ষককে এমপিও দেয়ার নির্দেশনা দিয়ে রায় ঘোষণা করেছে হাইকোর্ট।

রিটকারীর আইনজীবী মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্যাহ্ মিয়া বলেন, এ সংক্রান্ত চারটি রিটের চূড়ান্ত শুনানি শেষে বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল আল আমিন সরকার।

রিটকারীর আইনজীবী মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্যাহ মিয়া সাংবাদিকদের বলেন, বেসরকারি নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘদিন ধরে চাকরি করলেও তারা সরকারি বেতনের অংশ (এমপিও) পাচ্ছিলেন না। তাই শিক্ষকরা এমপিও পাওয়ার জন্য হাইকোর্টের নির্দেশনা চেয়ে পৃথক পৃথক চারটি রিট করেন। ওই রিটের শুনানিতে রুল জারি করেন আদালত।

তিনি জানান, বেসরকারি এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ) শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতাদির সরকারি অংশ প্রদান এবং জনবল কাঠামো সম্পর্কিত নির্দেশিকা অনুযায়ী বেতন প্রদান করে থাকে সরকার। নীতিমালা অনুযায়ী এমপিও প্রদানে কোনো প্রতিবন্ধকতা না থাকা সত্ত্বেও তাদের এমপিও প্রদান করা হয়নি। ভুক্তভোগীরা সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করেও এমপিও না পেয়ে রিট পিটিশন করেন।

রিটকারীরা হলেন, ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট আদর্শ মহিলা বিদ্যালয়ের প্রভাষক আলী আশরাফ, ধারা আদর্শ ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক আসাদুজ্জামান, বীমপুর হাইস্কুলের সহকারী শিক্ষক আতিকুর রহমান এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৪৩ জন শিক্ষক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.