ডেস্ক : ঝিনাইদহে একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দোতলা ভবনের নির্মাণকাজে রড ছাড়াই ঢালাই দেয়া হয়েছে। সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের মসলেম উদ্দিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি জানাজানির পর গতকাল মঙ্গলবার বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেয়। এ ঘটনায় ঝিনাইদহ ফ্যাসিলিটিস বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ঠিকাদারকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে কাজটি ভেঙে পুনর্নির্মাণের আদেশ দেয়া হয়েছে।

ঝিনাইদহ ফ্যাসিলিটিস বিভাগ অফিস সূত্রে জানা যায়, মাগুরার মেসার্স উত্তরা স্পুল সেন্টার নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নির্মাণকাজটি পায়। ওই প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি হিসেবে ঝিনাইদহের ঠিকাদার মেজবাউল কবীর খোকা নির্মাণকাজ শুরু করেন। কাজের শুরুতেই বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি অভিযোগ করে, ঠিকাদার নির্মাণকাজে নিম্নমানের ইট, বালু ও খোয়া ব্যবহার করছেন। তবে ওই সময় সংশ্লিষ্ট অফিস বিষয়টি আমলে নেয়নি। পরে বিষয়টি সবার নজরে আসে।

মসলেম উদ্দিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি বিপ্লব হোসেন জানান, ঠিকাদার মেজবাউল কবীর খোকা প্রথম থেকেই নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহার শুরু করেন। গত সোমবার রড ছাড়াই লিনটেল ঢালাই দিয়েছেন। বিষয়টি জানার পর গ্রামবাসী এর প্রতিবাদ করে।

Jinaidha-schol

এ বিষয়ে ঠিকাদার মেজবাউল কবীর খোকা বলেন, আমি মিস্ত্রিদের এভাবে কাজ করতে বলিনি। তারা কাজে ভুল করেছে। তাই রড ছাড়াই ঢালাই দিয়েছে।

নির্মাণকাজ তদারকির দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবীর বলেন, নিয়ম অনুযায়ী রড বেঁধে লিনটেল ঢালাই হয়নি। তাই সব ভেঙে ফেলা হয়েছে। একই সঙ্গে এ বিষয়ে ঠিকাদারকে শোকজ করা হয়েছে।

Jinaidha-schol

ঝিনাইদহ শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম জানান, সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.