ডেস্ক : রাজধানী ঢাকায় নির্মীয়মাণ দেশের প্রথম মেট্রোরেলের প্রথম স্প্যানটি ইতোমধ্যে দৃশ্যমান হয়েছে। রাজধানীর উত্তরার দিয়াবাড়িতে দুটি পিলারকে সংযুক্ত করে স্প্যানটি বসানো হয়েছে।

নিরাপত্তাবেষ্টনীর মধ্যে কাজ করছেন মেট্রোরেল প্রকল্পের প্রকৌশলী ও কর্মীরা। দুটি অংশে ভাগ করে মেট্রোরেলের কাজ চলছে। মূল ডিপো নির্মাণ এবং চলাচলের লাইন। ইতোমধ্যে আগারগাঁও পর্যন্ত পাইলিং শেষ হয়েছে। মাটির ওপরের অংশে নির্মিত পিলারের ওপর বসানো হবে স্প্যান।

সংশ্লিষ্টরা জানান, উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত মোট ২০ দশমিক ১ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রেলপথে ৭৭০টি স্প্যান বসবে। প্রায় ৫৯ একর জায়গার ওপর নির্মিত হচ্ছে মেট্রোরেলের মূল ডিপো। নির্ধারিত সময়ের আগেই ডিপোর কাজ শেষ হবে।

তারা আরও জানান, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে আগারগাঁও পর্যন্ত চলাচলের লক্ষ্য নির্ধারণ করে এগিয়ে চলছে প্রকল্পের কাজ। শিগগিরই আগারগাঁও পয়েন্টে বসানো হবে দ্বিতীয় স্প্যান। এই মাসেই স্প্যান বসানোর কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে।

প্রকল্প ব্যবস্থাপক ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ শাহজাহান বলেন, পুরো প্রকল্পের কাজ শেষ হলে প্রতি ঘণ্টায় ৬০ হাজার যাত্রী উভয় দিক থেকে আসা-যাওয়া করবে মেট্রোরেলে। আগামী বছর জাপানের গাড়ি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান কাওয়াসাকি-মিৎসুবিশি থেকে কোচ আমদানি করা হবে।

বিদ্যুৎচালিত এই ট্রেনে সবসময় বিদ্যুৎ সুবিধা নিশ্চিত করতে দুটি প্লান্ট নির্মাণ করা হচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.