নরসিংদি প্রতিনিধি : মোবাইল চুরির অভিযোগে এক কিশোরীর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার রাতে নরসিংদী জেলার শিবপুর উপজেলার খনকুট গ্রামে। আর হত্যার অভিযোগ এসেছে কিশোরীরর আপন চাচীর বিরুদ্ধেই।

মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে ক্ষিপ্ত পাষণ্ড চাচী ভাতীজির গায়ে কেরসিন ঢেলে আগুন দেয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছে আজিজা (১৫) নামের ওই কিশোরী। নিহত কিশোরী আজিজা খনকুট গ্রামে বাসিন্দা আব্দুস সাত্তারের মেয়ে।

আজিজার ভাই সুজন মিয়া জানান, গত কয়েক দিন আগে তার আপন চাচী বিউটি বেগমের একটি মোবাইল চুরি হয়। এ ঘটনার জের ধরে শুক্রবার রাতে আজিজাকে ধরে নিয়ে যান বিউটি। এক পর্যায়ে তার হাত-পা বেঁধে গায়ে কেরসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রাত ১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সকাল ৭টার দিকে আজিজার মৃত্যু হয়েছে।

আজিজা নিহতের খবর নিশ্চিত করে ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির এসআই বাচ্চু মিয়া জানান, লাশ মর্গে রাখা হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.