সরকারি দুই ব্যাংকের খেলাপি ঋণ ৯৭৬৪ কোটি টাকা

 সরকারি দুই ব্যাংকের খেলাপি ঋণ ৯৭৬৪ কোটি টাকা

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : চলতি ২০১৭ সালের জুন মাস পর্যন্ত সরকারি বেসিক ব্যাংক ও সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের মোট খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে নয় হাজার ৭৬৪ কোটি টাকা।

এর মধ্যে কেবল বেসিক ব্যাংক ৬২৮টি প্রতিষ্ঠানের কাছে ছয় হাজার ৫৩৮ কোটি ৪২ লাখ টাকা পাবে। আর সোনালী ব্যাংকের শীর্ষ ২০ ঋণ খেলাপির কাছে পাবে তিন হাজার ২২৫ কোটি ৯০ লাখ টাকা।

গতকাল রোববার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত অনুমিত হিসাব কমিটির এই তথ্য প্রকাশ করা হয় বলে সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

ওই বৈঠকের বরাত দিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বেসিক ব্যাংক যে ৬২৮ কোম্পানিকে ঋণ দিয়েছে এর মধ্যে ৫৭টি প্রতিষ্ঠানকে কোনো প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ছাড়াই ঋণ দিয়েছে।

আর সোনালী ব্যাংকের শীর্ষ ২০ ঋণ খেলাপি প্রতিষ্ঠানের তালিকা পেলেও প্রতিষ্ঠানের মালিকদের নাম পায়নি সংসদীয় কমিটি।

কমিটিকে দেওয়া বেসিক ব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়, পাওনা ছয় হাজার ৫৩৮ কোটি ৪২ লাখ টাকার মধ্যে ১০০ কোটি বা তার চেয়ে বেশি পাওনা আছে এমন গ্রাহকের সংখ্যা ১১ জন। তাদের কাছে পাওনা এক হাজার ২৫৬ কোটি ৩২ লাখ টাকা।

৫০ কোটি থেকে ১০০ কোটি পর্যন্ত পাওনা এমন প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৩০টি। এদের কাছে মোট পাওনা দুই হাজার ১০৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকা।

বেসিক ব্যাংকের শীর্ষ ঋণ খেলাপি প্রতিষ্ঠান হল, দি ওয়েল টেক্স লিমিটেড। তাদের কাছে পাওনা ১২৮ কোটি ৯৯ লাখ টাকা। এছাড়া ডেল্টা সিস্টেম লিমিটেড (১২৮ কোটি ৪২ লাখ টাকা), আইজি নেভিগেশন লিমিটেড (১১৯ কোটি ৯৫ লাখ), বে নেভিগেশন লিমিটেড (১১৬ কোটি ৩৮ লাখ), ক্রিস্টাল স্টিল অ্যান্ড শিপ ব্রেকিং লিমিটেড (১১৩ কোটি ৮৩ লাখ), ম্যাপ পেপার বোর্ড মিলস লিমিটেড (১১৩ কোটি ৪২ লাখ), প্রফিউশন টেক্সটাইল লিমিটেড (১১১ কোটি ৫৫ লাখ), মা টেক্স (১১১ কোটি ২২ লাখ), কনফিডেন্স সুজ লিমিটেড ( ১০৮ কোটি ২৯ লাখ), এ আর এস এস এন্টারপ্রাইজ ১০২ কোটি ৪০ লাখ টাকা এবং নিউ অটো ডিফাইন (১০১ কোটি ৮৭ লাখ) পাওনা আছে।

সোনালী ব্যাংকের শীর্ষ খেলাপি ২০টি প্রতিষ্ঠান হল- টিএন ব্রাদার্স অ্যান্ড গ্রুপ (৪৮১ কোটি ৩৭ লাখ), হল-মার্ক গ্রুপ (৪৭৯ কোটি ৯ লাখ),  ফেয়ার ট্রেড ফেব্রিক্স (৩১৬ কোটি ৪০ লাখ),  মুন্নু ফেব্রিক্স (২২৮ কোটি ৭৩ লাখ), অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ (২১১ কোটি ৮৮ লাখ), জিএমজি এয়ারলাইন্স (১৪৮ কোটি ৩৪ লাখ), লীনা পেপার মিলস (১৩৭ কোটি ৫৪ লাখ), মেঘনা কনডেন্সড মিল্ক (১৩০ কোটি ৭০ লাখ), এপেক্স উইভিং অ্যান্ড ফিনিশিং (১২৭ কোটি ৯৩ লাখ), সোনালী জুট মিলস (১২৬ কোটি ৮৫ লাখ), একে জুট ট্রেডিং (১১৬ কোটি ২২ লাখ), বিশ্বাস গার্মেন্টস (১০৪ কোটি ৪৫ লাখ), রেজা জুটস লিমিটেড (৯৮ কোটি ৫৮ লাখ, ইস্টার্ন ট্রেডার্স (৯২ কোটি ৫৪ লাখ), সাইয়ান কর্পোরেশন (৭৬ কোটি), পদ্মা পলি কটন (৭৫ কোটি ৯৩ লাখ), এজাক্স জুট মিলস (৭২ কোটি), ক্লাসিক স্পালাইজ লিমিটেড (৬৮ কোটি ৭৯ লাখ), নিউজ স্টাইল (৬৬ কোটি ৫৫ লাখ) ও কোস্টাল সি ফুড (৬৮ কোটি ৮৬ লাখ)।

এছাড়া বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বৈঠকে ওই ঋণ আদায়ের জন্য যে ২০ জন ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার নিয়োগ করা হয়েছে তাদের নাম এবং বেসিক ব্যাংকের ৫০ কোটি টাকার উপরে যে সব প্রতিষ্ঠান ঋণ খেলাপি আছে তাদের নামের তালিকাসহ পত্রিকায় প্রকাশের ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

mimmahmud

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.