আদালত প্রতিবেদক : বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মধ্যে সুষ্ঠু, সুন্দর, সমহারে ত্রাণ বিতরণের জন্য অবিলম্বে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি।

আজ রোববার সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেন, শুধু মানবিক কারণে বাংলাদেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সাধারণ জনগণ, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ত্রাণ নিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছে।

কিন্তু ত্রাণ কার্যক্রমে সুষ্ঠু সমন্বয়ের অভাবে আশ্রয় নেওয়া সব রোহিঙ্গা খাবার পাচ্ছে না। ত্রাণ বিতরণে এক ধরনের বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি বিরাজ করছে। তাই সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি মনে করে ত্রাণ সুষ্ঠ ও সমহারে বণ্টনের জন্য রোহিঙ্গা শিবিরগুলোতে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা দরকার।

গত ২৪ অাগস্ট মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর চৌকিতে হামলার ঘটনার পর থেকে প্রায় ৪ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফ আশ্রয় নেয়।

এরপর বিভিন্ন দেশ থেকে ত্রাণ এলেও বিপুল সংখ্যাক শরণার্থীর সবাইকে ত্রাণের আওতায় আনা সম্ভব হয়নি।

সেনাবাহিনী মোতায়েন করে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করলে ত্রাণ বিতরণে শৃঙ্খলা ফিরে আসবে এবং বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হবে বলেও মনে করে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি।

সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন সমিতির সহ-সভাপতি মো. অজিউল্লাহ, কোষাধক্ষ্য রফিকুল ইসলাম হিরো, সিনিয়র সহ-সম্পাদক শামীমা সুলতানা দীপ্তি, কার্যনির্বাহী সদস্য কুমার দেবুল দে প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.