টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, মায়ানমারে চলমান সহিংসতার কারণে নতুন করে যে রোহিঙ্গারা দেশে প্রবেশ করছে তারা যেন কোনভাবেই ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত না হতে পারে সেজন্য নির্বাচন কমিশন সতর্ক অবস্থায় রয়েছে।
আজ বুধবার টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সিইসি একথা বলেন।
আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর সারাদেশে অনুষ্ঠিতব্য জেলা পরিষদ, উপজেলা পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ, স্থগিত ও উপ-নির্বাচন উপলক্ষে এক মতবিনিয়ম সভার আয়োজন করা হয়।
সিইসি রোহিঙ্গাদের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলেন, নতুন রোহিঙ্গাদের যে বায়োমেট্রিক করা হবে, সেখানে নির্বাচন অফিস যেন সম্পৃক্ত থাকতে পারে সে ব্যপারে আলোচনা হয়েছে। এছাড়াও ৩০টি উপজেলায় যেখানে রেহিঙ্গারা রয়েছে বা তাদের সম্পৃক্ততা রয়েছে সেখানে আমাদের বিশেষ কমিটি নজরদারি করছে।
কে এম নুরুল হুদা বলেন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল আনুষ্ঠানিক ভাবে আমাদের সাথে সাক্ষাত করে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে বলে জানিয়েছে। এমনকি বিএনপি আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনে অং গ্রহণ করার কথা জানিয়েছে। তাদের রাজনৈতিক কার্যক্রমও বলে দিচ্ছে তারা নির্বাচনে অংশ নিবে। নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না এমনটা কেউ বলেনি।
এছাড়াও সিইসি আগামী নির্বাচনে নির্বাচনের কর্মপদ্ধতি নিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তাদের সাথে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন।
নির্বাচনের কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীনের সভাপতিত্বে মতবিনমিয় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমীন ও পুলিশ সুপার মাহবুব আলম প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.