ডেস্ক : দেশের বিভিন্ন নদ-নদীর ৪৬টি পয়েন্টের পানি বেড়েছে ও ৩৯টির কমেছে। ১০ পয়েন্টের পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়া, পাঁচটি পয়েন্টে অপরিবর্তিত রয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ৯০টি পানি সমতল স্টেশনের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী এ তথ্য পাওয়া যায়।

নদ-নদীর পরিস্থিতি সম্পর্কে বন্যা পূর্বভাস ও সতর্কীরণ কেন্দ্রের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ব্রহ্মপুত্র-গঙ্গা ও সুরমা নদ-নদী সমূহের পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে। অন্যদিকে, যমুনা, ও কুশিয়ারা নদীসমূহের পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে। পদ্মা নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল আছে। ব্রহ্মপুত্র নদের পানি সমতল হ্রাস আগামী ৪৮ ঘণ্টায় অব্যাহত থাকতে পারে।

আগামী ২৪ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল হয়ে যেতে পারে, যা পরবর্তীতে হ্রাস পেতে পারে। গঙ্গা নদীর পানি সমতল হ্রাস আগামী ৭২ ঘণ্টায় অব্যাহত থাকতে পারে। অন্যদিকে, পদ্মা নদীর পানি সমতল আগামী ২৪ ঘণ্টায় স্থিতিশীল থাকতে পারে।

এদিকে, কুশিয়ারা নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পেতে পারে, অপরদিকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় সুরমা নদীর পানি সমতল হ্রাস পেতে পারে।

সোমবার সকাল ৯টা থেকে আজ সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বান্দরবানে ৯০ মিলিমিটার, যশোরে ৬৩ দশমিক ৪ মিলিমিটার, ভাগ্যকুলে ৫৭ মিলিমিটার ও পরশুরামে ৪৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.