র‍্যাঙ্কিংয়ে সাব্বির, মোস্তাফিজদের লাফালাফি

 র‍্যাঙ্কিংয়ে সাব্বির, মোস্তাফিজদের লাফালাফি

ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ পরই আইসিসি র‍্যাঙ্কিংয়ে হয়েছে আরও উলটপালট। চট্টগ্রাম টেস্টে রান পেয়ে সাব্বির রহমান ও উইকেট পেয়ে বড় লাফ দিয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান। আগের টেস্টের দুই হিরো সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল নিষ্প্রভ থাকায় তাদের র‍্যাঙ্কিংয়েও পড়েছে প্রভাব।

চট্টগ্রাম টেস্টে প্রথম ইনিংস ৬৬ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ২৪ রান করেছিলেন সাব্বির। এরফলে ৯৫ থেকে এক লাফে উঠে এসেছেন ৭৩ নম্বরে। কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ বেশ কিছুদিন ছন্দে ছিলেন না। চট্টগ্রামে দুই ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়ে ১২ ধাপ এগিয়ে তিনি এখন ৪৩ নম্বরে। উত্তরণ হয়েছে মেহেদী হাসান মিরাজেরও, তিন ধাপ এগিয়ে তিনি এখন ২৯ নম্বরে। চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশের হয়ে বেশি রান করা অধিনায়ক মুশফিক এগিয়েছেন কেবল এক ধাপ। ২২ নম্বরে আছেন তিনি।

ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশকে জিতিয়ে দুই বন্ধু সাকিব আল হাসান আর তামিম ইকবাল র‍্যাঙ্কিংয়েও দিয়েছিলেন লাফ। এক টেস্ট পরই পারফরম্যান্সের কারণেই পিছিয়ে গেছেন তারা। ব্যাটিংয়ে নিজের সেরা অবস্থান ১৪ থেকে পিছিয়ে তামিম এখন ১৬ তে। বোলিংয়ে ১৫ থেকে তিন ধাপ নেমে গেছেন সাকিব। অল রাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ে তিনি এখনো এক নম্বরে থাকলে হারিয়েছেন ৩৩ রেটিং পয়েন্ট। ৪৫৬ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ভারতের রবীন্দ্র জাদেজার চেয়ে তিনি এখন ২৬ পয়েন্টে এগিয়ে।

চট্টগ্রাম টেস্ট জিতে রমরমা অবস্থা ন্যাথান লায়ন, ডেভিড ওয়ার্নারদের। প্রথমবারের মতো সেরা দশে ঢুকেছেন লায়ন। টেস্ট বোলারদের মধ্যে তিনি এখন আটে। দুই টেস্টেই সেঞ্চুরি করে ডেভিড ওয়ার্নার ঢুকে গেছেন সেরা পাঁচে। চট্টগ্রামে ৮২ রান করা পিটার হ্যান্ডসকম্ব উঠে এসেছেন ২২ নম্বরে।

সিরিজ ড্র করায় র‍্যাঙ্কিংয়ের উপরের দল অস্ট্রেলিয়া হারিয়েছে তিন রেটিং পয়েন্ট। এখন পাঁচে অবস্থান তাদের। সিরিজ জিতে আটে উঠতে না পারলে ৫ রেটিং পয়েন্ট বেড়েছে বাংলাদেশের।

mimmahmud

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.