নিজস্ব প্রতিবেদক : গুঞ্জন ছিল আসন্ন ঈদুল আজহায় সরকারি ছুটি তিন দিন থেকে বাড়তে পারে। তবে সেই গুঞ্জন গুঞ্জন হিসেবেই থেমে থাকছে।

আজ সোমবার ঈদের আগের শেষ মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সংক্রান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বা কেউ এই সংক্রান্ত কোনো প্রস্তাবনাও তোলেননি।

সভায় উপস্থিত এক মন্ত্রী নাম প্রকাশ না করা শর্তে জানিয়েছেন, আজকের বৈঠকে এই সংক্রান্ত কোনো আলোচনাই হয়নি। আর বন্যার কারণে বাড়তি ছুটি দেওয়াও যুক্তিযুক্ত হতো না।

এ কারণেই এবার ঈদে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিরা আগের নিয়ম মেনে ৩ দিনের ছুটিই পাচ্ছেন।

এদিকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্ন্যান্স ইনোভেশন ইউনিট (জিআইইউ) বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে ঈদের ছুটি ৬ দিন করার সুপারিশ করে। তারা দুই ঈদের ছুটি ৩ দিন করে ৬ দিন বাড়িয়ে নৈমিত্তিক ছুটি ২০ দিনের পরিবর্তে ১৪ দিন করতে বলেছিল।

কিন্তু নীতি-নির্ধারণী সিদ্ধান্তের বিষয় হওয়ায় এ বিষয়ে মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত প্রয়োজন। কিন্তু তার আগে বিষয়টি মন্ত্রিসভায় উপস্থাপন করা হবে কিনা সে বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন নেয়া দরকার। তাই জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একটি প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়। কিন্তু সেটি সোমবার পর্যন্ত ফেরত আসেনি।

তাই এবার ঈদে  ১,২ ও ৩ তারিখই কেবল ঈদের ছুটি থাকছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.