ডেস্ক : নদ-নদীগুলোতে ইলিশ না মিললেও সাগরে পাওয়া যাচ্ছে প্রচুর ইলিশ। সাগরে ধরা পড়া এইসব ইলিশে এখন সয়লাব বরিশাল, চট্টগ্রাম, বরগুনার ইলিশের আড়তগুলো।

ওইসব এলাকার প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্য ও দেশের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবর অনুসারে, গভীর সমুদ্রে জেলেদের জালে রূপালি ইলিশ ধরা দিতে শুরু করেছে। সাগর থেকে জেলেরা ট্রলারভর্তি ইলিশ নিয়ে ফিরছেন ঘাটে। রাত থেকে সকাল পর্যন্ত ঘাটে নোঙর করছে ট্রলারগুলো। সকালে ট্রলার থেকে ইলিশ নামানোর জন্য প্রস্তুত ঘাট শ্রমিক।

সোমবার বরিশালের পের্ট রোডের মাছের আড়তের অবস্থার বর্ণনা দিয়ে বাসসের খবরে বলা হয়েছে,  আগের চেয়ে কর্মীদের ব্যস্ততা অনেক বেড়েছে। সাগরে মাছ ধরার নৌ যান (ফিসিং) বোট ঘাটে আসলেই জেলেরা হাঁক-ডাক দিতে থাকেন।

জেলা মৎস্য পাইকারি ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. আলী আসরাফের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়েছে, গত ক’দিন ধরে বরিশালে শত শত মণ ইলিশ আসছে। নদীর তুলনায় গভীর সাগরে ইলিশের উপস্থিতি বেশি। বিশেষ করে মহীপুর, পাথরকাটায় প্রচুর মাছের আমদানি রয়েছে। প্রতিটি ফিসিং বোটই ১শ’ থেকে দেড়’শ কেজি পর্যন্ত মাছ পাচ্ছে।

আলী আসরাফ বলেন, আজকে বরিশালের ঘাটে ৪টি ফিসিং বোট এসেছে। এসব বোটে ৬০০ মণের মতো ইলিশ রয়েছে। এছাড়া নদ-নদীর ইলিশ রয়েছে ২০০ মণের মতো।

তিনি আশা প্রকাশ করেন, সব মিলিয়ে প্রায় হাজার মণের মত মাছ হবে আজকে।  সামনের দিনগুলোতে ইলিশ বাড়ার সঙ্গে এখানে কাজও আরো বাড়বে।

এদিকে বরগুনার জেলে রুস্তম আলী ও কাশেম হোসেন বলেন, স্থানীয় নদীতে আগের মতো ইলিশ ধরা পড়ছে না। গত বছরের এই সময়টাতে নদীতে প্রচুর ইলিশ পাওয়া গেছে। তবে সাগরে প্রচুর ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে।

বরিশাল ফিসারী ঘাট থেকে ছবি প্রথম আলো সৌজন্যে

চট্টগ্রামের ফিসারি ঘাটেও দেখা গেছে প্রচুর ইলিশ নিয়ে ফিরছেন সমুদ্রে ইলিশ ধরতে যাওয়া জেলেরা। গতকাল রোববার দেশের একটি দৈনিকের এক সংবাদে বলা হয়েছে, ওই এলাকার উপকূলে দেশে ধরা পড়া ইলিশের পরিমাণ, আয়তন ও ওজন বেড়েছে।

বরিশালে দেখা গেছে, ৪০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের মণ বিক্রি হচ্ছে ১২ থেকে ১৪ হাজার টাকা। তার উপরে ৬০০ গ্রামের মণ ২২ থেকে ২৪ হাজার টাকা। ৬০০ থেকে ৯০০ গ্রামের মণ চলছে ৩৪ থেকে ৩৬ হাজার টাকা। আর ১ কেজি সাইজের মণ বিক্রি চলছে ৬০ থেকে ৬২ হাজার টাকা।

বরগুনার পাথরঘাটা বিএফডিসি মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের হিসেব মতে সেখানে প্রতি মণ ইলিশ পাইকারি বিক্রি হয়েছে ১০ থেকে ১৪ হাজার টাকার মধ্যে, এক সপ্তাহ আগেও দর ছিল ২২ থেকে ২৫ হাজার টাকা।

রোববার চট্টগ্রামের ফিশারিঘাটে দেখা গেছে সেখানেও আকার ভেদে ১২ হাজার থেকে ৫০  হাজার টাকা মণে দেশের বিভিন্ন স্থানে ইলিশ সরবরাহ করা হচ্ছে ইলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.