নিজস্ব প্রতিবেদক : ব্যাপক সমালোচনার মুখে ভ্যাট আইনের কার্যকারিতা আরও দুই বছরের জন্য স্থগিত করছে সরকার।

বুধবার সংসদে বাজেট আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘নতুন ভ্যাট আইন নিয়ে যেহেতু কথা উঠেছে, ব্যবসায়ীরাও এই আইনে তেমন সাড়া দিচ্ছেন না, সে কারণে আমি মনে করি এই আইন আগে যেমন ছিল আগামী দুই বছরও তেমনই থাকবে।’

এবারের বাজেটে ভ্যাট আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৯১ হাজার কোটি টাকা।

নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন না হওয়ায় সরাসরি ভ্যাট থেকে আদায় কমবে বড় অঙ্কের। একই সঙ্গে আয়কর, আমদানি পর্যায়সহ অন্যান্য খাতেও আদায় কমবে। ফলে সামগ্রিকভাবে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা থেকে এনবিআর পিছিয়ে পড়বে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

উল্লেখ্য, গত ১ জুন বাজেট ঘোষণার পর থেকে সংসদের ভেতরে-বাইরে নতুন ভ্যাট আইন নিয়ে সারাদেশে সমালোচনার ঝড় ওঠে। নতুন ভ্যাট আইনের হার ও বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া নিয়ে ব্যবসায়ীরা আপত্তি জানিয়ে আসছেন। তাদের দাবি, নতুন আইন অনেক নিত্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে দেবে। এতে মূল্যস্ফীতির চাপ বাড়বে। বাজেট ঘোষণার আগে ভ্যাট আইন সংশোধনে সুনির্দিষ্ট সুপারিশ দিয়েছে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই। এছাড়া, এ আইন বাস্তবায়নের প্রতিবাদে এর মধ্যে সারাদেশের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা আন্দোলনের হুমকিও দেন।

অবশ্য ব্যবসায়ীদের প্রবল আপত্তির মধ্যেও আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ১ জুলাই ২০১৭ থেকে নতুন ভ্যাট আইন কার্যকরের ঘোষণা দেন অর্থমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.