স্পোর্টস ডেস্ক : ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে পাত্তাই পায়নি দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাড়িয়েছে প্রোটিয়ারা। ৩ রানরে দুর্দান্ত জয়ে সিরিজে ফিরেছে এবি ডি ভিয়ার্সের দল।

শুক্রবার কাউন্টি গ্রাউন্ড, টাউনটনে টস জিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় ইংলিশ অধিনায়ক ইয়ান মরগান। আগে ব্যাট করে ইংল্যান্ডকে ১৭৫ রানের টার্গেট দেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাবে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৭১ রান তোলে ইংল্যান্ড। ফলে ৩ রানে হেরে যায় ইংল্যান্ড।

দক্ষিণ আফ্রিকার দেয়া ১৭১ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ভালাই শুরু করেছিল ইংল্যান্ড। ১৫ ওভারে ১৩৩ রান তুলে নিয়েছিল ইংল্যান্ড। জয়ের থেকে তারা মাত্র ৪২ রান দূরে ছিল। হাতে ছিল ৩০ বল ও ৮ উইকেট। ওপেনার জেসন রয় ৬৭ রানে ব্যাটিং করছিলেন। তার নতুন পার্টনার লিভিংস্টন ছিলেন ৬ রানে অপরাজিত। ইংলিশ সমর্থকরা জয়ের উল্লাস প্রায় শুরু করে দিয়েছিল তখন থেকেই।

কিন্তু কে জানত পরবর্তী ত্রিশ মিনিটে ম্লান হয়ে যাবে তাদের মুখের হাসি! ১৬তম ওভারের প্রথম বলে পাল্টে যায় ম্যাচের দৃশ্যপট। ক্রিস মরিসের বলে রান আউট রয়। সাজঘরে ফেরার আগে ৪৫ বলে ৬৭ রানের দারুণ ইনিংস উপহার দেন রয়। এরপর আরে ম্যাচে ফিরেনি ইংল্যান্ড। শেষ ৬ বলে ১২ রানের প্রয়োজনে ব্যাটিং করে ৩ রানের আক্ষেপে পুড়তে হয় ইংলিশদের। দারুণ জয়ে সিরিজে সমতা ফিরিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তৃতীয় ম্যাচে হবে সিরিজ নির্ধারণ।

দক্ষিণ আফ্রিকার জয়ের নায়ক ক্রিস মরিস। বল হাতে ২ উইকেট ও ব্যাট হাতে ১২ রান করেন ডানহাতি এ অলরাউন্ডার।

এর আগে, টস হেরে আগে ব্যাট করে সর্বোচ্চ ৪৬ রান করেন অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স। ৪৫ রান করেন ওপেনার স্মুটস। আগের ম্যাচে হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ পাওয়ার ফারহান বেহারদিয়েনের ব্যাট থেকে আসে ৩২ রান।

ইংল্যান্ডের হয়ে বল হাতে ৩টি উইকেট নেন টম কুরান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.