ডেস্ক : ওশেনিয়া অঞ্চলের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ ইন্দোনেশিয়ার কার্সটেঞ্জ পিরামিডে অভিযান শেষে ফেরার পথে বিরূপ আবহাওয়ায় বেইজ ক্যাম্পে আটকা পড়েছেন পর্বতারোহী মুসা ইব্রাহীম।  এখনও তিনি উদ্ধার হননি। তার সঙ্গে রয়েছেন আরও ২ সঙ্গী। আজ রোববার মুসা এবং তাদের সঙ্গীদের উদ্ধারে হেলিকপ্টার গেলেও তা বেস ক্যাম্পে ল্যান্ড করতে পারছে না।

মুসা ইব্রাহীমের শুভাকাঙ্খী এবং বন্ধু উচ্ছাস মাহমুদ জাকারিয়া অর্থসূচককে বলেন, আমি আজকেই মুসা ইব্রাহীমের এক সহকর্মীর সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি আমাকে জানিয়েছেন, বৈরী আবহাওয়ার কারণে হেলিকপ্টার যেতে পারছে না। সেখানকার আবহাওয়া এত খারাপ যে, তাদের সিভিল অ্যাভিয়েশন হেলিকপ্টার যাওয়ার অনুমতি দিচ্ছে না। তবে ইন্দোনেশিয়া-বাংলাদেশ এবং ভারতের যৌথ উদ্যোগে তাদের উদ্ধারে সর্বাত্মক চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

গত ১৩ জুন বাংলাদেশ সময় সকাল ৮:৫০ মিনিটে (স্থানীয় সময় সকাল ৫:৪৭ মিনিট) তারা পর্বত আরোহণ শুরু করেন। মাউন্ট কার্সটেঞ্জ জয় করতে গিয়ে প্রতিকূল আবহাওয়ায় তারা বেস ক্যাম্পে অাটকা পড়ে আছেন আজ ৩দিন। খাবার সঙ্কটে ভুগছে পুরো টিম।এর আগে মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারী তার স্ট্যাটাসে লেখেন,  ওশেনিয়া মহাদেশের সর্বোচ্চ পর্বত মাউন্ট কার্সটেঞ্জ পিরামিড জয় করার জন্য বাংলাদেশ ও ভারতের ৩ সদস্যের টিমের নেতৃত্ব দিচ্ছেন মুসা ইব্রাহীম।

আব্দুল মান্নান আরও লেখেন, মুসার বড় বোনের সঙ্গে ফেইসবুক মেসেঞ্জারে কথা হলো আজ। আজ সকালে হেলিকপ্টারের মাধ্যমে তাদের উদ্ধার করার কথা থাকলেও আবহাওয়া অনূকুলে না থাকায় তা সম্ভব হয়নি। পরে কি ঘটতে যাচ্ছে তাও জানা নেই তার। ইন্দোনেশিয়ায় বাংলাদেশ অ্যাম্বাসেডরের সহায়তা চেয়েছেন তিনি। সেখান থেকে তাকে জানানো হয়, আগামী সোমবার পাপুয়া নিউগিনির সাথে তারা যোগাযোগ করবে।

তিনি লেখেন, ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে যায় কি-না সেটিই আমার বড় আশঙ্কা। রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে জরুরি সহযোগিতা দরকার এই পর্বত আরোহীকে অক্ষত অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে। সবার দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করছি।

কথা দিয়েছিলেন ৭ মহাদেশের সর্বোচ্চ পর্বত চূড়ায় উড়িয়ে দেবেন লাল সবুজের পতাকা। জাতিকে দেওয়া ওয়াদা পূরণ করতে গিয়ে আজ তিনি চরম বিপদগ্রস্ত, লেখেন আব্দুল মান্নান।

এদিকে, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তার ফেসবুক স্টাটাসে লেখেন, মুসা ইব্রাহিমের সাথে যোগাযোগ হয়েছে আমার, তার দলের একজন ভারতীয় আরোহীর স্যাটেলাইটের মাধ্যমে! ৪দিন হলো আটকা। খাবার শেষ। আমাদের অ্যাম্বাসী একটু আগে জানিয়েছে তিমিকাতে হেলিকপ্টার প্রস্তুত আছে, আবহাওয়া ভালো হলেই তারা তাদের আনতে যাবে, আশা করি আজ (রোববার) সকালেই। এশিয়ান (ASEAN) দপ্তর, আমাদের অ্যাম্বাসী এবং ভারতের অ্যাম্বাসী তদারকি করছে। দোয়া করবেন তাদের জন্য।

এক সঙ্গীর স্যাটেলাইট কমিউনিকেটরের রেকর্ড অনুযায়ী, সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৪ হাজার ২৫০ মিটার উচ্চতায় অবস্থান করছেন তারা।

পর্বতারোহী রেইনল্ড মেসনারের তালিকা অনুসারে ৭ মহাদেশের ৭ সর্বোচ্চ পর্বত চূড়ার (সেভেন সামিট) একটি হল কার্সটেঞ্জ পিরামিড। ইন্দোনেশিয়ার পাপুয়া প্রভিন্সে কার্সটেঞ্জ পর্বতমালায় ৪ হাজার ৮৮৪ মিটার উঁচু ওই শৃঙ্গ স্থানীয়ভাবে পুঞ্চাক জায়া নামেও পরিচিত।

এই অভিযানে অংশ নেওয়ার জন্য ২৯ মে ইন্দোনেশিয়ার বালি হয়ে পাপুয়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন মুসা ইব্রাহীম। বালিতে তার সঙ্গে যোগ দেন ভারতের সত্যরূপ ও নন্দিতা।  পরে পাপুয়ার নাবির থেকে শুরু হয় মূল অভিযান।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালের ২৩ মে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে এভারেস্ট জয় করেন মুসা ইব্রাহীম।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.