ডেস্ক : আফ্রিকার দেশ ইথিওপিয়ায় প্রায় ১ হাজার বছর আগের একটি পুরনো শহর খুঁজে পেয়েছেন প্রত্নতাত্ত্বিকরা। স্থানীয় পর্যায়ে মিথ আছে শহরটি হাজার বছর আগে দৈত্যরা তৈরি করেছিল।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, দেশটির হারলা এলাকার এই প্রাচীন শহরটি খুড়ে ভারত, মিশর ও চীনে তৈরি নানা জিনিসপত্র পাওয়া গেছে।

ওই এলাকায় দ্বাদশ শতকের একটি মসজিদের নিদর্শনও খুঁজে পেয়েছেন তারা। প্রত্নতাত্ত্বিকরা বলছেন, মসজিদটির কাঠামোতে তানজানিয়া ও সোমালিয়ার নির্মাণ শৈলি লক্ষ্য করা গেছে।

তারা বলছে, এই আবিষ্কারটি আফ্রিকার বিভিন্ন মুসলিম জনগোষ্ঠীর মধ্যকার আন্তঃসম্পর্ক খুঁজে পেতে সাহায্য করবে। তাদের ধারনা, এই এলাকটি এক সময় সমগ্র অঞ্চলের বাণিজ্যিক কেন্দ্রবিন্দু ছিলো।

দেশটির এক্সটের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতাত্ত্বিকরা সেখানে মাদাগাস্কার, মালদ্বীপ, চীন ও ইয়েমেনে তৈরি অলংকারও খুঁজে পেয়েছেন।

এদিকে বিবিসির ইথিওপিয়া প্রতিনিধি ইমানুয়েল ইগুনজা জানান, স্থানীয়রা বিশ্বাস করেন এই শহরটি দৈত্যরা তৈরি করেছিল। কারণ যত বড় পাথরের চাই দিয়ে ওই শহরের অবকাঠামো তৈরি তার সাধারণ মানুষের পক্ষে বহন করা সম্ভব না।

তবে প্রত্নতাত্ত্বিকরা সেই রকম বড় বড় পাথর আর দৈত্যের কোনো নিদর্শন খুঁজে পাননি।

প্রত্নতাত্ত্বিক দলের প্রধান অধ্যাপক ইনসল বলেন, দৈত্যের গল্প যে ভিত্তিহীন তা অবশ্যই প্রমাণ করতে পারবো। তবে আমি নিশ্চিত নই এলাকাবাসী আমাদের এখনও বিশ্বাস করতে পারছে কি না?

খুঁজে পাওয়া প্রাচীন শহরে আগামী বছর নতুন করে খোগাখুড়ির কাজ শুরু হবে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.