লংগদুর ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তে আইনী নোটিস

 লংগদুর ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তে আইনী নোটিস

আদালত প্রতিবেদক : রাঙামাটি জেলার লংগদুতে পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর বসতবাড়িতে হামলার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত ও ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ প্রদানের দাবিতে আইনী নোটিস পাঠানো হয়েছে। সোমবার (১২ জুন) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী নিকোলাস চাকমা রেজিস্ট্রি ডাকযোগে এই নোটিস পাঠান।

স্বরাষ্ট্র সচিব, সমাজকল্যাণ সচিব, নারী ও শিশু কল্যাণ সচিব, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, পুলিশ মহাপরিদর্শক, চট্টগ্রামের রেঞ্জের ডিআইজি, রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার, লংদু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নোটিসে বিবাদী করা হয়েছে। নোটিস প্রাপ্তির ৭২ ঘণ্টার মধ্যে এই বিষয়ে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। অন্যথায় সংবিধানের ১০২ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে নোটিসে উল্লেখ করা হয়েছে।

নোটিসে বলা হয়েছে, পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর রক্ষায় স্থানীয় প্রশাসনের কোনো ব্যর্থতা রয়েছে কিনা তা সুপ্রিম কোর্টের একজন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতির নেতৃত্বে তদন্ত করতে হবে। এই তদন্তের মাধ্যমে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ও ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে কি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তাও খতিয়ে দেখতে বলা হয়েছে।

এর আগে এক বাঙালি যুবককে খুনের অভিযোগে গত ১ জুন বাঙালিরা পাহাড়িদের পাড়ায় আক্রমণ করে তাদের বসতবাড়িতে আগুন দেওয়া হয়েছে। উপজেলা সদরের তিনটিলা এলাকা, বড়াদম ও মানিকজোর ছড়াসহ জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) লংগদু উপজেলা অফিসসহ দুই শতাধিক পাহাড়ির বাড়িঘর জ্বালিয়ে দেওয়া হয়।

জানা যায়, খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কের চার মাইল (কৃষি গবেষণা এলাকা সংলগ্ন) নামক স্থান থেকে যুবলীগ নেতা নুরুল ইসলাম নয়নের লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনি ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালক। বাঙালিরা দাবি করেছে, দুই পাহাড়ি যুবক নুরুল ইসলামকে সকালে ভাড়ায় নিয়ে যায়। নুরুল ইসলামের লাশ উদ্ধার হলে বাঙালিদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয় এবং তারা মিছিল নিয়ে পাহাড়িদের গ্রাম আক্রমণ ও বসতবাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে।

নুরুল ইসলাম নয়নের লাশ খাগড়াছড়ি থেকে লংগদুর বাইট্টাপাড়ার নিজ বাড়িতে নেওয়া হলে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীসহ উত্তেজিত লোকজনের একটি মিছিল লংগদু উপজেলা সদরে যায়। পথে মিছিল থেকে লংগদুর তিনটিলাসহ উপজেলা সদরের আশপাশে পাহাড়িদের বাড়িঘরে হামলা ও অগ্নিসংযোগ চালায় দুর্বৃত্তরা।

mimmahmud

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.