সাভার প্রতিনিধিঃ

সাভার থেকে অপহরনের এক দিন পর সানাউল্লাহ নামে এক গার্মেন্টস কর্মকর্তাকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব ৪। এসময় জরিত থাকার অপরাধে এক নারীসহ অপহরনকারী চক্রের ৩ সদস্যকে আটক করা হয়। বড়দেশী আমিনবাজার।

শুক্রবার(০৯ জুন) সন্ধ্যার পর সাভারের আনন্দপুর মহল্লা থেকে ওই অপহৃত কর্মকর্তাকে উদ্ধার করা হয়। আটককুতরা হলো-মো. মাহাফুজুর রহমান মাসু। সে নবাবগঞ্জের মো. আফসার হোসেনের ছেলে।আটক নারী তাসমেরী সুলতানা লাকী ওরপে দ্বীপা।সে আশুলিয়ার নবীনগর এলাকার তফিকুল মন্ডলের মেয়ে। অপরজন সলিম শেখ। সে সাভার গেন্ডার মো. সলেমন শেখের ছেলে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব-৪ এর নবীনগর ক্যাম্পের কোম্পানী কোমান্ডার মেজর আব্দুল হাকিম জানান, অপহৃত সানাউল্লাহ তার ড্রাত লাইন্সেস বিক্রির জন্য পরিচিত অনেকের কাছে বলেন। দুই একদিন পর অপরিচিত মুঠোফোন কল করে তার ড্রাগ লাইন্সেসটি কেনার কথা বলেন। পরে  বৃহস্পতিবার সকালে অপহরকারী চক্রটি কৌশলে কর্মকর্তা সানাউল্লাহকে নিজ বাসা আমিনবাজার থেকে  সাভার বাজার বাস স্ট্যান্ড দেখা করে। সেখান থেকে কৌশলে আনন্দপুর এক বাসায় নিয়ে যায়। বাসার কক্ষে ঢুকতেই কর্মকর্তাকে হা পা বেঁধে ফেলে। পরে তাকে শারীরিকভাবে নিযাতন করা হয়। মুঠোফোনে পরিবারের কাছে মুক্তিপণ দাবী করে। পরিবার বিষয়টি র‌্যাবকে জানায়। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব এর একটি দল অভিযান চালায়। পরে আনন্দুপুরে ফজলুল হকের বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। এসময় নারীসহ তিন অপহরনকারীকে হাতেহ নাতে আটক করা হয়।

আটকদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হবে বলেও জানিয়েছে র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.