মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি : মুন্সীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে মাসুদ (১৮) নামে এক তরুণ নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তিনজন গুলিবিদ্ধসহ মোট ১০ জন আহত হয়েছেন। শনিবার ভোরে জেলা সদরের চরকেওয়ার ইউনিয়নের দক্ষিণ চরমুশুরা গ্রামে এ সংঘর্ষে ঘটনা ঘটে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইউনুস আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ওই গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা নান্নু হাজী ও মো. হারুনের সঙ্গে অপর আওয়ামী লীগ নেতা এবং ওয়ার্ড মেম্বার মন্টু দেয়ানের বিরোধ চলে আসছিল।

গত ইউপি নির্বাচনে হারুণকে পরাজিত করে মন্টু দেওয়ান মেম্বার নির্বাচিত হয়। এরপর হারুণ ও তার গ্রুপ এলাকা ছাড়া হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে নান্নু হাজী ও হারুণ এক হয়ে আজ ভোরে মন্টু দেওয়ান গ্রুপের ওপর হামলা করলে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মাসুদ নিহত হন। মাসুদ ওই গ্রামের মরহুম মো. মোজাফ্ফর ঢালির ছেলে। এছাড়া অপর তিনজন গুলিবিদ্ধসহ ১০ জন আহত হয়েছেন।

গুলিবিদ্ধরা হলেন- তারিক (২০), সুমন দেওয়ান (২০) ও ইরফান (২২)। তাদের মুন্সীগঞ্জে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া অন্যদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বর্তমানে পরিস্থিতি তাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। দোষীদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ওসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.