ক্রীড়া ডেস্ক : আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির অষ্টম আসরে ‘এ’ গ্রুপে নিজেদের শেষ ম্যাচে আজ শুক্রবার মুখোমুখী হচ্ছে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড। টুর্নামেন্টের সেমি-ফাইনালে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখতে এই ম্যাচে জিততেই হবে টাইগারদের। একই অবস্থানে আছে নিউজিল্যান্ডও।

কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন্সে বাংলাদেশ সময় আজ শুক্রবার বেলা সাড়ে ৩টায় শুরু হবে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের টুর্নামেন্টে টিকে থাকার লড়াই।

প্রথম দুই ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যে ‘এ’ গ্রুপ থেকে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। এই গ্রুপ থেকে সেমি-ফাইনালে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে অন্য তিন দলেরও। সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। তাদের ২টি ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হওয়ায় ২ নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে আছে দলটি।

অন্যদিকে ইংল্যান্ডের কাছে পরাজিত হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে খেলা ম্যাচটি ড্র হওয়ায় ১ পয়েন্ট আছে বাংলাদেশের ঝুলিতেও। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ড্র করার পর ইংল্যান্ডের কাছে পরাজিত হওয়ায় ১ পয়েন্ট পেয়েছে নিউজিল্যান্ডও। তবে রান রেটিং পয়েন্টে এগিয়ে থাকায় পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে আছে বাংলাদেশ। তাই আজকের ম্যাচে জয়ী দলের সেমি-ফাইনাল খেলার সম্ভাবনা থাকবে।

তবে আগামীকাল শনিবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেয়ে আজকের ম্যাচের জয়ী দলকে টপকে সেমি-ফাইনালে অংশ নেবে অস্ট্রেলিয়া।

টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত শুরুর সুযোগ পেয়েছিলো বাংলাদেশ। স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে ৩০৫ রানের বড় সংগ্রহ পায় টাইগাররা। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেন বাংলাদেশের ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল। তার ১২৮ রান সত্বেও শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি ৮ উইকেটে হারে বাংলাদেশ।

প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় ম্যাচে ব্যাট হাতে উজ্জল ছিলেন তামিম। টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরির দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওই ম্যাচে ৯৫ রানেই আটকে যান এই বামহাতি ওপেনার। ১৮২ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। জয়ের জন্য ১৮৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ১৬ ওভারে ১ উইকেটে ৮৩ রান করে অস্ট্রেলিয়া। এরপর বৃষ্টির হানা। শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। ২০ ওভার ব্যাট করতে পারলেই বৃষ্টি আইনে ম্যাচটি জিততে পারতো অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু ৪ ওভার কম খেলাতে ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয়।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সাম্প্রতিক রেকর্ড সাহস যোগাচ্ছে টাইগারদের। গত ২৪ মে ত্রিদেশীয় সিরিজের শেষ ম্যাচে ডাবলিনে নিউজিল্যান্ডকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। তবে নিউজিল্যান্ডের ওই দলে ছিলেন না কেন উইলিয়ামসন, মার্টিন গাপটিল, টিম সাউদি, ট্রেন্ট বোল্ট ও এডাম মিলনে। তারা সবাই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির দলে আছেন।

তবু জয়ের ব্যাপারে আশাবাদি তামিম, দেশের মাটিতে আমরা বেশ কয়েকবারই পূর্ণশক্তির নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েছি। তাদের অনেক মানসম্মত খেলোয়াড় রয়েছে। যদি আমরা নিজেদের সেরাটা খেলতে পারি- তবে ফলাফল আমাদের দিকেই আসবে।

কার্ডিফের ভেন্যুও বাংলাদেশকে উজ্জীবিত করছে। ওই ভেন্যুতেই ২০০৫ সালে ন্যাটওয়েস্ট ট্রফিতে অস্ট্রেলিয়ার মতো বিশ্বসেরা দলকে প্রথমবারের মত হারিয়েছিলো টাইগাররা। ওই ম্যাচের ফল থেকেও নিজেদের চাঙ্গা করছে মাশরাফির দল।

বাংলাদেশের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে নিউজিল্যান্ডের ওপেনার মার্টিন গাপটিল, আমাদের সামনে এটি একটি নতুন ম্যাচ। নতুন লক্ষ্য, জিততেই হবে আমাদেরকে। সেই লক্ষ্য পূরণের জন্যই মাঠে নামবো আমরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.