ডেস্ক : এবারের রমজানে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের তুলনায় একটু বেশি। ফলে রোজা রাখতে গিয়ে অনেক রোজাদারই পানিশূন্যতায় ভুগছেন। এই পানিশূন্যতা নিয়ন্ত্রণ না করা গেলে বিভিন্ন ধরনের শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। তবে কিছু কিছু বিষয় মেনে চললে খুব সহজেই রোজার সময় পানিশূন্যতার সমস্যা দূর করা সম্ভব। এমনই কিছু উপকারী টিপস দেয়া হলো:

ক্যাফেইনযুক্ত পানীয় এড়িয়ে চলুন: রোজা থাকলে যতোটা সম্ভব চা-কফি এড়িয়ে চলুন। এই ধরনের পানীয়তে ক্যাফেইন বিদ্যমান। ক্যাফেইন গ্রহণ করা হল মূত্রের পরিমাণ বেড়ে যায়, এবং শরীরে দ্রুত পানির অভাব দেখা দেয়।

রোজা ভাঙুন ফল ও সবজি দিয়ে: ফল ও সবজি গ্রহণ করা হলে পানিশূন্যতা দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা কমে আসে। তাই রোজার সময় বেশি পরিমাণে এই ধরনের খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন। শরীরে পানির পরিমাণ বৃদ্ধির পাশাপাশি ফল ও সবজির পুষ্টিকর উপাদান আপনাকে সতেজ রাখতে সাহায্য করবে।

অতিরিক্ত মশলা ও লবণযুক্ত খাবার গ্রহণ করবেন না: বেশি পরিমাণে মশলা ও লবণযুক্ত খাবার খাওয়া হলে শরীরে পানির চাহিদা বৃদ্ধি পায়। তাই এই সময়ে যতোটা সম্ভব মশলা ও লবণযুক্ত খাবার গ্রহণ করা থেকে বিরত থাকুন।

একবারে বেশি পানি গ্রহণ করবেন না: রোজা ভাঙার পর একবারে বেশি পানি পান করবেন না। বেশি পরিমাণে পানি একসাথে গ্রহণ করা হলে শরীর থেকে তা দ্রুত মূত্রের মাধ্যমে বেরিয়ে যায়। তাই কিছুক্ষণ পরপর অল্প অল্প করে পানি পান করার অভ্যাস করুন। এ জন্য রোজা ভাঙার পর সবসময় সাথে একটি পানির বোতল রাখতে পারেন।

রোদে যাওয়া থেকে বিরত থাকুন: রোজার সময় একান্ত প্রয়োজন ছাড়া রোদে যাওয়া উচিত নয়। রোদে বেশিক্ষণ থাকা হলে শরীরে ঘামের সৃষ্টি হয়ে পানিশূন্যতা দেখা দিতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.