পাহাড়িদের ঘরে যারা আগুন দিয়েছে তাদের বিচার হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
0.0Overall Score
Reader Rating: (0 Votes)

রাঙামাটি প্রতিনিধি : রাঙামাটির লংগদু সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন হত্যার ঘটনায় পাহাড়িদের ঘরবাড়িতে যারা আগুন দিয়েছে তাদের বিচারের সম্মুখীন করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।সোমবার বেলা ১২টার দিকে লংগদু উপজেলা প্রশাসন কার্যালয়ে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় মোবাইল ফোনের মাধ্যমে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা জানান।

সভায় চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার রুহুল আমিন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর পাশ থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন ফোন করেছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, নয়নকে যে হত্যা করেছে তাদের কঠিন বিচার হবে। আর এ হত্যাকে কেন্দ্র করে পাহাড়িদের ঘরবাড়িতে যারা আগুন দিয়েছে এবং এ ঘটনায় যারা ইদ্ধন দিয়েছে তাদের বিচারের আওতায় আনা হবে।’চট্টগ্রাম পুলিশের ডিআইজি এসএম মনিরুজ্জামান, রাঙামাটি জেলা প্রশাসক মাঞ্জারুল মান্নান, রাঙামাটির পুলিশ সুপার সাইদ তারিকুল হাসান এবং ক্ষতিগ্রস্ত লংগদুবাসী।

সভায় প্রশাসনের খাগড়াছড়ি রিজিয়নের পক্ষ থেকে জোন কমান্ডর আব্দুল আলিম চৌধুরীর কাছে ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য সাত লাখ টাকা সহায়তা দেওয়া হয়। পরে জানানো হয়, সুবিধাজনক সময়ে ক্ষতিগ্রস্তরা জোন কমান্ডারের কাছ থেকে এ সহয়তা নিতে পারবেন।

প্রসঙ্গত,গত বৃহস্পতিবার লংগদু সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়নের লাশ দীঘিনালা উপজেলার চারমাইল এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়। এই হত্যার জন্য পাহাড়ী সশস্ত্র সংগঠনগুলোকে দায়ী করে শুক্রবার সকালে লংগদুতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে কয়েক হাজার বাঙালি। এই মিছিল থেকেই তিনটিলা, বাইট্টাপাড়া এবং মানিকজোরছড়া এলাকায় শতাধিক পাহাড়িদের বাড়িঘরে আগুন দেওয়া হয়বলে অভিযোগ পাহাড়িদের।

রাঙামাটির লংগদু সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন হত্যার ঘটনায় পাহাড়িদের ঘরবাড়িতে যারা আগুন দিয়েছে তাদের বিচারের সম্মুখীন করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

সোমবার বেলা ১২টার দিকে লংগদু উপজেলা প্রশাসন কার্যালয়ে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় মোবাইল ফোনের মাধ্যমে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা জানান।

সভায় চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার রুহুল আমিন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর পাশ থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন ফোন করেছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, নয়নকে যে হত্যা করেছে তাদের কঠিন বিচার হবে। আর এ হত্যাকে কেন্দ্র করে পাহাড়িদের ঘরবাড়িতে যারা আগুন দিয়েছে এবং এ ঘটনায় যারা ইদ্ধন দিয়েছে তাদের বিচারের আওতায় আনা হবে।’চট্টগ্রাম পুলিশের ডিআইজি এসএম মনিরুজ্জামান, রাঙামাটি জেলা প্রশাসক মাঞ্জারুল মান্নান, রাঙামাটির পুলিশ সুপার সাইদ তারিকুল হাসান এবং ক্ষতিগ্রস্ত লংগদুবাসী।

সভায় প্রশাসনের খাগড়াছড়ি রিজিয়নের পক্ষ থেকে জোন কমান্ডর আব্দুল আলিম চৌধুরীর কাছে ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য সাত লাখ টাকা সহায়তা দেওয়া হয়। পরে জানানো হয়, সুবিধাজনক সময়ে ক্ষতিগ্রস্তরা জোন কমান্ডারের কাছ থেকে এ সহয়তা নিতে পারবেন।

প্রসঙ্গত,গত বৃহস্পতিবার লংগদু সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়নের লাশ দীঘিনালা উপজেলার চারমাইল এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়। এই হত্যার জন্য পাহাড়ী সশস্ত্র সংগঠনগুলোকে দায়ী করে শুক্রবার সকালে লংগদুতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে কয়েক হাজার বাঙালি। এই মিছিল থেকেই তিনটিলা, বাইট্টাপাড়া এবং মানিকজোরছড়া এলাকায় শতাধিক পাহাড়িদের বাড়িঘরে আগুন দেওয়া হয়বলে অভিযোগ পাহাড়িদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.